ঢাকা বিভাগের সবকটি জেলা , উপজেলা এবং পৌরসভা (মানচিত্র সহ)

Mis Niki
প্রকাশকাল (০৪ এপ্রিল ২০১৭)

f
g+
t

ঢাকা বিভাগ বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চলে অবস্থিত। এই বিভাগে বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা সিটি অবস্থিত। ঢাকা বিভাগে জেলার সংখ্যা ১৩ টি, উপজেলা ৯৭ টি এবং পৌরসভা ৬৪ টি। নিচে ঢাকা বিভাগের জেলাসমূহ এবং এই সকল জেলার উপজেলা সম্পর্কে আলোচনা করা হল। ঢাকা বিভাগের জেলার সংখ্যা ছিল ১৭ টি কিন্তু ময়মনসিংহ বিভাগ ঘোষণা করার পর থেকে ঢাকা বিভাগের প্রশাসনিক জেলা ১৩ টি। ঢাকা বিভাগের উত্তরে ময়মনসিংহ বিভাগ, দক্ষিণে বরিশাল বিভাগ, পশ্চিমে রাজশাহী এবং খুলনা বিভাগ এবং পূর্বে চট্টগ্রাম বিভাগ অবস্থিত। নিচের মানচিত্র থেকে ঢাকা বিভাগের জেলাসমুহের অবস্থান সম্পর্কে ধারণা পেতে পারেন।

ঢাকা বিভাগের সবকটি জেলা , উপজেলা এবং পৌরসভা (মানচিত্র সহ)

ছবি Mis Niki

বরিশাল বিভাগের সকল জেলা , উপজেলা এবং পৌরসভা (মানচিত্র সহ)

রংপুর বিভাগের সকল জেলাতে কয়টি উপজেলা (মানচিত্র সহ)

ঢাকা জেলা

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা। জেলা হিসেবে ঢাকা ১৭৭২ সালে স্বীকৃতি পায়। ঢাকা জেলা বুড়িগঙ্গা নদীর তীরে অবস্থিত। জাহাঙ্গীর নগর/ ঢাবেক্কা/ ঢুক্কা থেকে ঢাকা নামের উৎপত্তি। সাভার, ধামরাই, কেরাণীগঞ্জ, নবাবগঞ্জ, দোহার এই ৫ টি উপজেলা নিয়ে ঢাকা প্রশাসনিক জেলা অবস্থিত। মহান মুক্তিযুদ্ধে ঢাকা জেলা ১ নং সেক্টরের অধীনে ছিল।

ফরিদপুর জেলা

ফরিদপুর ঢাকা বিভাগের অন্তর্গত একটি জেলা। ফরিদপুরের পূর্ব নাম ফাতেহাবাদ। জেলাটি আড়িয়াল খাঁ নদীর তীরে অবস্থিত। ১৮১৫ সালে ফরিদপুরকে জেলা হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া হয়। এর আয়তন ২০৫২ বর্গকিলোমিটার প্রায়। ফরিদপুর জেলায় ফরিদপুর সদর, আলফাডাঙ্গা, বোয়ালমারী, সদরপুর, নগরকান্দা, ভাঙ্গা, চরভদ্রাসন, মধুখালী, সালথা মোট ৯ টি উপজেলা রয়েছে।

গাজীপুর জেলা

গাজীপুর ঢাকার উত্তরে অবস্থিত। জেলাটির পূর্বনাম জয়দেবপুর। গাজীপুর জেলা তুরাগ নদীর তীরে অবস্থিত। গাজীপুর বাংলাদেশের ১১ তম সিটি কর্পোরেশন। ঢাকার দ্বিতীয় নিকটতম নগরী। ১৭৪১ বর্গকিলোমিটার এলাকা নিয়ে ১৯৮৪ সালে গাজীপুর জেলা গঠিত হয়। গাজীপুরের ৫ টি উপজেলা যথা- কালীগঞ্জ, কালিয়াকৈর, কাপাসিয়া, গাজীপুর সদর এবং শ্রীপুর।

গোপালগঞ্জ জেলা

মধুমতির জলধারা বিধৌত গোপালগঞ্জ জেলায় বাংলাদেশের অন্যতম ব্যক্তিত্ব বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জন্মগ্রহণ করেন। তাছাড়া গোপালগঞ্জে বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রি শেখ হাসিনার পৈত্রিক নিবাস। জেলাটি ১৯৮৪ সালে ১৪৬৮ বর্গকিলোমিটার এলাকা নিয়ে গোপালগঞ্জ জেলা গঠন করা হয়। গোপালগঞ্জের মোট উপজেলা ৫ টি যথা- গোপালগঞ্জ সদর, কাশিয়ানী, টুংগীপাড়া, কোটালীপাড়া ও মুকসুদপুর।

কিশোরগঞ্জ জেলা

কিশোরগঞ্জ জেলা পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে অবস্থিত। জেলাটি ১৯৮৪ সালে ঘোষিত হয় এবং এর আয়তন প্রায় ২৬৮৮ বর্গকিলোমিটার। কিশোরগঞ্জ জেলায় মোট ১৩ টি উপজেলা। ইটনা, কটিয়াদী, ভৈরব, তাড়াইল, হোসেনপুর, পাকুন্দিয়া, কুলিয়ারচর, কিশোরগঞ্জ সদর, করিমগঞ্জ, বাজিতপুর, অষ্টগ্রাম, মিঠামইন ও নিকলী।

মাদারীপুর জেলা

মাদারীপুর জেলা ১৯৮৪ সালে ঘোষণা করা হয়। জেলাটি আড়িয়াল খাঁ নদীর তীরে অবস্থিত। মাদারীপুর জেলার আয়তন ১১২৫ বর্গকিলোমিটার। বিখ্যাত ইসলাম ধর্ম সংস্কারক হাজি শরিয়তুল্লাহ মাদারীপুরে জন্মগ্রহণ করেন। এই জেলায় ৫ টি উপজেলা মাদারীপুর সদর, শিবচর, কালকিনি এবং রাজৈর।

মানিকগঞ্জ জেলা

মানিকগঞ্জ জেলা যমুনা নদীর তীরে অবস্থিত। জেলাটি ১৯৮৪ সালে ১৩৭৯ বর্গকিলোমিটার এলাকা নিয়ে গঠিত হয়। মানিকগঞ্জ জেলা ঢাকা জেলার পশ্চিমে অবস্থিত। মানিকগঞ্জ জেলায় উপজেলার সংখ্যা ৭ টি যথা- হরিরামপুর, সাটুরিয়া, মানিকগঞ্জ সদর, ঘিওর, শিবালয়, দৌলতপুর ও সিংগাইর।

মুন্সীগঞ্জ জেলা

বিক্রমপুর খ্যাত মুন্সীগঞ্জ জেলা ধলেশ্বরী নদীর তীরে অবস্থিত। ১৯৮৪ সালে ১০০৪ বর্গকিলোমিটার এলাকা নিয়ে মুন্সীগঞ্জ জেলা গঠিত হয়। মুন্সীগঞ্জ জেলার উপজেলার সংখ্যা ৬ টি মুন্সিগঞ্জ সদর, শ্রীনগর, সিরাজদিখান, লৌহজং, গজারিয়া ও টংগীবাড়ি।

নারায়নগঞ্জ জেলা

জেলাটি শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে অবস্থিত। নারায়নগঞ্জকে প্রাচ্যের ডান্ডি বলা হয়। এই জেলার পূর্ব নাম পানাম সিটি। নারায়নগঞ্জ দেশের ৭ম সিটি কর্পোরেশন এবং ঢাকা থেকে এই জেলার দূরত্ব সবচেয়ে কম। ১৯৮৪ সালে ৭৫৯ বর্গকিলোমিটার অঞ্চল নিয়ে নারায়নগঞ্জ জেলা ঘোষণা করা হয়। নারায়নগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলা, নারায়নগঞ্জ সদর, রূপগঞ্জ উপজেলা, সোনারগাঁ উপজেলা এই চারটি উপজেলা।

নরসিংদী জেলা

নরসিংদী জেলা মেঘনা ও শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে অবস্থিত। বাংলাদেশের বিখ্যাত প্রত্নতত্ত্ব ওয়ারী বটেশ্বর নরসিংদীতে অবস্থিত। ১৯৮৪ সালে ১১৫০ বর্গকিলোমিটার এলাকা নিয়ে নরসিংদী জেলা গঠিত হয়। বেলাবো, মনোহরদী, নরসিংদী, পলাশ, রায়পুরা, শিবপুর এই ৬ টি উপজেলা নিয়ে নরসিংদী জেলা গঠিত।

রাজবাড়ী জেলা

রাজবাড়ী জেলা গোয়ালন্দ নামে পরিচিত। পদ্মা ও যমুনার মিলনস্থল রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে। ১০৯২ বর্গকিলোমিটার এলাকা নিয়ে ১৯৮৪ সালে রাজবাড়ী জেলা ঘোষিত হয়। রাজবাড়ীর উপজেলার সংখ্যা ৫ টি রাজবাড়ী সদর, গোয়ালন্দ, পাংশা, বালিয়াকান্দি ও কালুখালী।

শরিয়তপুর জেলা

বর্তমান শরিয়তপুর তৎকালীন ইন্দ্রাকপুর পরগনার অন্তরভুক্ত ছিল। পদ্মা সেতুর দক্ষিণ পাড় জাজিরা শরিয়তপুরে অবস্থিত। ১৯৮৪ সালে শরিয়তপুর জেলা গঠন করা হয়। এর আয়তন প্রায় ১১৭৪ বর্গকিলোমিটার। শরিয়তপুরের উপজেলার সংখ্যা শরিয়তপুর সদর, নড়িয়া, জাজিরা, গোসাইরহাট, ভেদরগঞ্জ, ডামুড্যা মোট ৬ টি।

টাঙ্গাইল জেলা

যমুনা নদীর পূর্ব পাড় টাঙ্গাইল জেলার অন্তর্গত। টাঙ্গাইল জেলা ১৯৬৯ সালে গঠিত হয়। এই জেলার আয়তন ৩৪১৪ বর্গকিলোমিটার। মধুপুর বনাঞ্চল টাঙ্গাইলে অবস্থিত। টাঙ্গাইলের বাসাইল, ভুয়াপুর, দেলদুয়ার, ঘাটাইল, গোপালপুর, মধুপুর, মির্জাপুর, নাগরপুর, সখিপুর, টাঙ্গাইল সদর, কালিহাতী এবং ধনবাড়ী মোট ১২ টি উপজেলা রয়েছে।

Mis Niki-এর আরও প্রবন্ধ পড়ুন

* সংবিধানের গুরুত্বপূর্ণ অনুচ্ছেদসমূহ ও অনুচ্ছেদ সম্পর্কিত ভাগ

* ইন্টারনেট থেকে অনলাইনে টাকা আয়ের কয়েকটি সহজ উপায়

* বাংলাদেশের সকল বিভাগের, জেলার, পৌরসভার এবং উপজেলার তথ্য

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

আরও প্রবন্ধ পড়ুন



বিজ্ঞাপন



© ২০১৬ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত LearnArticle.com